র্সবশেষ শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

নিউইয়র্কে হামলাকারী বাংলাদেশী কম্যুনিটিকে প্রতিনিধিত্ব করে না : উদ্বিগ্ন প্রবাসীরা

নিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের ব্যস্ততম বাস টার্মিনালে ‘সন্ত্রাসী আক্রমণের চেষ্টা’র অভিযোগে আটক আকায়েদ উল্লাহ’র কারণে ব্যাপক উদ্বেগ আর দুশ্চিন্তা বিরাজ করছে বাংলাদেশী কম্যুনিটিতে। আটক হবার সময় আহত ঐ ব্যক্তিকে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘বাংলাদেশী অভিবাসী’ বলে উল্লেখ করেছে।
এছাড়া শহরটির মেয়র বিল দা ব্লাসিও বলেছেন, সন্ত্রাসীরা কিছুতেই জয়ী হবেনা। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের পর শরীরে ‘নিম্ন-প্রযুক্তি’র একটি বোমা বাধা অবস্থায় আকায়েদ উল্লাহকে আটক করা হয়। নিউইয়র্ক টাইমসসহ একাধিক মার্কিন সংবাদ মাধ্যম পুলিশকে উদ্ধৃত করে বলছে, আকায়েদ উল্লাহ একজন বাংলাদেশী অভিবাসী এবং ব্রুকলীন এলাকার বাসিন্দা। এরপর থেকে সেখানকার বাংলাদেশী কম্যুনিটির মধ্যে উদ্বেগ আর দুশ্চিন্ত ছড়িয়ে পড়ে।
নিউইয়র্কে দীর্ঘদিন ধরে একটি তথ্য প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র চালাচ্ছেন এবং কমিউনিটিতে প্রভাবশালী ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিফ বলছিলেন, স্বাভাবিকভাবে পুরো কম্যুনিটির মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে। যেসব জায়গায় বাংলাদেশীদের বেশি আনাগোনা, বিস্ফোরণের পর সেটি একেবারেই কমে গেছে। এমনকি যাদের বৈধ কাগজপত্র আছে এবং নাগরিকত্বের প্রক্রিয়া শুরু করেছেন তারা ভয় পাচ্ছে। যারা অবৈধ আনডকুমেন্টেড কিন্তু কাগজপত্রের জন্য অ্যাপ্লাই করেছে, তারা সবাই দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছেন। সবার আশঙ্কা তাদের বৈধতার কাগজপত্র তৈরির পথে এ ঘটনার প্রভাব পড়তে পারে। হানিফ আরো জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিবাসন বিরোধী নীতির মধ্যে এ ধরণের ঘটনা স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ তৈরি করে।
বাংলাদেশী কম্যুনিটির সকলেই একবাক্যে বলছেন, হামলাকারী ‘বাংলাদেশী অভিবাসী’ হলেও সে কিছুতেই বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করে না। তার শাস্তি হওয়া উচিত বলে মনে করেন কম্যুনিটির নেতৃবৃন্দ। হানিফ বলেছেন, ২০১৩ সালে নিউইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভে হামলা চালিয়েছিল ২১ বছর বয়েসী একজন অভিবাসী বাংলাদেশী। তখনো সেখানকার বাংলাদেশীদের উদ্বেগে দিনপার করতে হয়েছে।
জানা গেছে, আকায়েদ উল্লাহ ব্রুকলিনের ফ্ল্যাটল্যান্ডস এলাকায় থাকতো। তার বাড়িটি এখন ঘেরাও করে রাখা হয়েছে। আকায়েদ উল্লাহ একটি বৈদ্যুতিক সামগ্রীর দোকানে কাজ করতো এবং সেখানেই বোমাটি তৈরি করা হয় বলে জানা গেছে। হানিফ মনে করেন, নিউইয়র্কে এখন অভিবাসী বাংলাদেশীদের বেশিরভাগই দ্বিতীয় প্রজন্মের যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী। ফলে অভিভাবকদের সন্তানদের বেশি করে সময় দেয়া প্রয়োজন, যাতে তারা কি করছে, সে সম্পর্কে তারা যথেষ্ট ওয়াকিবহাল থাকেন। তিনি বলছেন, সন্ত্রাসী হামলার মত ঘটনায় সম্পৃক্ত হয়ে পড়ার আগে দেখা যায় পাঁচ ছয় মাস ঐসব ছেলেদের কোনো খবর থাকে না। ঐ সময় হয়তো তাদের ‘মগজ-ধোলাই’ হয়। ফলে এসব ব্যাপারে সচেতন হতে হবে অভিভাবকদের। -বিবিসি।

এ রকম আরো খবর

অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবী

ব্রাজিল: বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় নির্বাচন ঘিরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী বিএনপির কেন্দ্রীয়বিস্তারিত

‘বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা’য় অগ্রগতির জয়গান

সালাহউদ্দিন আহমেদ: বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিপুল দর্শক সমাবেশের মধ্য দিয়ে নিউইয়র্কেবিস্তারিত

মুক্তধারার সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচী

নিউইয়র্ক: নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ-এর জন্মদিন উপলক্ষে মুক্তধারা নিউইয়র্ক সপ্তাহব্যাপীবিস্তারিত

  • ব্রঙ্কসের খলিল বিরিয়ানীতে হালাল টার্কির অর্ডার নেয়া হচ্ছে
  • নিউজার্সীর পেটারসনে ‘বাংলাদেশ বুলেবার্ড’ নামে সড়ক হচ্ছে
  • কবীর’স বেকারীর প্রতিষ্ঠাতা হুমায়ুন কবীর নেই
  • মৌলভীবাজারে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির রাজনীতি বিরাজমান
  • নিউইয়র্ক হামলা : বাংলাদেশী আকায়েদ দোষী সাব্যস্ত
  • নিউইয়র্কের ৯টি সাপ্তাহিকের সম্পাদক/প্রকাশকদের নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত
  • ব্রাজিলে জাতীয়তাবাদী যুবদল-এর ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
  • ৬ নভেম্বর মঙ্গলবার সারাদিন ভোট
  • ট্রাষ্টি বোর্ড থেকে আলী ইমামকে অব্যহতি : মিলনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ
  • ট্রাম্পের ইমিগ্রেশন বিরোধী আইনে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার আশ্বাস
  • আব্দুস শহীদ নিউইয়র্ক সিটির এনএবি ব্রঙ্কস-১০ এর ভাইস চেয়ার নির্বাচিত
  • বর্ণাঢ্য আয়োজনে নিউইয়র্কে ভাওয়াইয়া রজনী ‘ওকি গাড়ীয়াল ভাই’ অনুষ্ঠিত
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.