র্সবশেষ শিরোনাম

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

চাঞ্চল্যকর ইমাম আকুনজি ও তারা মিয়া হত্যার মামলা

নিউইয়র্কের কুইন্স ক্রিমিনাল কোর্টের রায়ে অস্কার মুরালকে সর্বোচ্চ শান্তি

সালাহউদ্দিন আহমেদ/দিদার চৌধুরী: নিউইয়র্কের ওজনপার্কে বাংলাদেশী ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজি ও তার সহযোগী তারা মিয়া হত্যার ঘটনায় অস্কার মুরাল নামের এক যুবককে সর্বোচ্চ শাস্তি দিয়ে রায় ঘোষনা করেছে আদালত। শুক্রবার (২৩ মার্চ) দুপুরে নিউইয়র্কের কুইন্স ক্রিমিনাল কোর্টে বারো সদস্যের জুরি বোর্ড ও এক বিচারক এই রায় ঘোষনা করেন। রায়ে আসামী মুরাল খুনী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ফাস্ট, সেকেন্ড, থার্ড ও ফোর্থ ডিগ্রি মার্ডারার হিসাবে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। আলোচিত ঐ জোড়া খুনের ঘটনায় আসামীর সর্বোচ্চ শাস্তির রায় হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশী কমিউনিটি।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১৩ আগষ্ট নিউইয়র্কের ওজন পার্কে দুর্বৃত্তের গুলিত নিহত হন নিউইয়র্কের ওজনপার্কের ওজোনপার্কের আলফোরকান মসজিদের ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজি (৫৫) ও তার সহযোগী মুসল্লী তারা মিয়া। স্থানীয় লিবার্টি এভিনিউ’র ৮০ স্ট্রিটে এই হত্যাকান্ড ঘটে। নিউইর্য়কের অন্যতম বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকা ওজোন পার্ক। প্রায় পঁচিশ হাজার বাংলাদেশীর বসবাস এই এলাকায়। এখানেই বাস করতেন আল ফোরকান মসজিদের নিহত ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজি এবং বৃদ্ধ তাঁরা মিয়া। তাঁরা মিঞা, ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজির প্রতিবেশী ছিলেন এবং প্রতিদিন তারা দু’জনে একসঙ্গে মসজিদে যেতেন এবং নামাজ পড়তেন। চার বছর ধরে ইমাম আকুনজি আল ফোরকান মসজিদের ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে কোন মুসলিম ইমাম হত্যার ঘটনা এটিই প্রথম।
ঘটনার দিন দুপুরে জোহরের নামাজ আদায় শেষে মসজিদ থেকে বাসায় ফেরার পথেই নির্বিচারে গুলিবিদ্ধ করা হয় তাদের। ইমাম আকুনজি ঘটনাস্থলেই আর তারা মিয়া হাসপাতালে মারা যান। ঘটনার পর অস্কার মুরাল নামে একজনকে আটক করে নিউইয়র্ক পুলিশ।
গত কয়েক সপ্তহ ধরে গুঞ্জন ছিল যে কোনো সময় হতে পারে চাঞ্চল্যকর বাংলাদেশী ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজি ও তার সহযোগি তারা মিয়া হত্যা মামলার রায় ঘিরে। বিশেষ করে গত তিন দিন ধরে নিউইয়র্কের কুইন্স ক্রিমিনাল কোর্টে টানা শুনানী চলছিল মামলাটির। ঘটনার বিবরণ, মামলার তদন্ত, আশেপাশের ভিডিও ফুটেজসহ সব কিছুই প্রমাণ করে অস্কার মুরালই ইমাম আকুনজি ও তারা মিয়াকে গুলি করে পলিয়ে যায়। ঘটনার পরপর স্থানীয়রা আটকও করে অস্কার মরালকে। কিন্তু আদালতে নিজে নিদোর্ষ দাবী করায় মামলাটির দীর্ঘ শুনানী হয় কোর্টে। প্রায় দুই বছর ধরে চলা বিচার কাজ শুক্রবারের রায় ঘোষণার মাধ্যমে শেষ হয়। ঐ ঘটনায় প্রতিটি ধাপে আদালত আমেরিকান-স্প্যানিস অস্কার মুরালকে দোষী বলে রায় দেয়।
রায়ে আদালত জানায়, মুরাল ফাস্ট, সেকেন্ড, থার্ড ও ফোর্থ ডিগ্রি মার্ডারার। আর তার শাস্তিও হবে সর্বোচ্চ। আদালত আসামীকে গিল্টি হিসাবে ঘোষনা করলেও আগামী ১৮ এপ্রিল শাস্তি কি হবে তা ঘোষনার জন্য তারিখ ধার্য করেন। অত্যন্ত মর্মান্তিক ঐ হত্যান্ডের ঘটনায় নিহতের পরিবারের সাথে সব সময় ছিল বাংলাদেশী কমিউনিটি। বিচারে সন্তোষ প্রকাশ করে, ন্যায় বিচার পাওয়ায় সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ইমাম আকুনজি ও তারা মিয়ার পরিবার।
এদিকে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে অত্যন্ত আলোচিত ঐ জোড়া খুনের ঘটনা ব্যাপক সারা ফেলে। ঘটনার পর থেকেই নিহতের পরিবারের পাশে ছিল বাংলাদেশি কমিউনিটি। প্রতিটি শুনানীর দিন আদালতে তাদের অংশগ্রহন ছিল স্বতস্ফুর্ত।
আকুনজি ও তারা মিয়া হত্যার ঘটনায় কমিউনিটি’র পাশাপাশি ঐ ঘটনার বিচার ও দোষীকে খুজে বের করতে তদন্ত সংশ্লিস্টদের সাথেও ছিল প্রবাসের বাংলাদেশী মিডিয়া। এ জন্য মিডিয়াকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন কমিউনিটি নেতারা।
ইমাম আলাউদ্দিন আকুনজি ও তারা মিয়া হত্যা মামলার রায় ও দোষীকে গিল্টি ঘোষণা করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নিউইয়র্কের বাংলাদেশী কমিউনিটি। তারা জানান, হ্রদয় বিদারক ঐ হত্যার ঘটনায় সব সময় সোচ্চার ছিলেন তারা। এমন রায় হওয়ায় সবাইকে সাধুবাদ জানিয়ে রায় কার্যকরের অপেক্ষার কথাও জানান তারা।

এ রকম আরো খবর

  • ভেরাইশপ নামে নতুন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান : অ্যামাজনের প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশের ইমরান
  • নিউইয়র্কে একুশ পালনে ব্যাপক প্রস্তুতি
  • ১৯৭০ সালের ২২ ফেব্রুয়ারী স্মরণে সভা ২২ ফেব্রুয়ারী
  • রিদম আয়োজিত ‘ভালোবাসার রেশ’ অনুষ্ঠান ১৭ ফেব্রুয়ারী
  • অমুসলিম হয়েও ধর্মবিদ্বেষের শিকার বাংলাদেশী বরুন চক্রবর্তী
  • বাংলা পত্রিকা ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ সংখ্যা
  • সিলেটে কুহিনুর আহমদকে গ্রেফতারের নিন্দা ও মুক্তি দাবী
  • ক্ষমতা নিয়ে ইসি-ট্রাষ্টি বোর্ডের মধ্যে টাগ অব ওয়ার
  • মডেলিং সহজ কাজ নয়, চাই আতœবিশ্বাস
  • নারী আসনে মনোনয়ন চান মোমতাজ-ফরিদা
  • ‘বিএনপি রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের শিকার
  • নতুন ভবণ ও ফিউনারেল হোমন প্রতিষ্ঠান পরিকল্পনা
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.