র্সবশেষ শিরোনাম

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

পিপল এন টেক’র মিলিয়ন ডলারের স্কলারশীপ ঘোষণা

বাংলা পত্রিকা রিপোর্ট: নিউইয়র্ক তথা যুক্তরাষ্ট্রে আইটি সেক্টরে সুপরিচিত প্রতিষ্ঠান পিপল এন টেক চলতি বছর নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য এক মিলিয়ন ডলার স্কলারশীপ ঘোষণা করেছে। গ্র্যাজুয়েড ডিগ্রীধারী শিক্ষার্থীরা এই স্কালারশীপ পাওয়ার অধিকারী হবেন এবং এজন্য নির্বাচিত হওয়ার টেষ্ট পরীক্ষা দিতে হবে এবং ৩০ এপ্রিলের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের আবেদন করতে হবে। বাংলাদেশ থেকে নবাগত অভিবাসী সহ উত্তর আমেরিকায় বসবাসরত আগ্রহীরা এজন্য আবেদন করতে পারবেন।
পিপল এন টেক’র নিউইয়র্কস্থ অফিসে রোববার (১ এপ্রিল) বিকেলে আয়োজিত মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির সিইও ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ এক মিলিয়ন ডলার স্কলারশীপ প্রদানের কথা ঘোষণা করেন। এর আগে প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট ফারহানা হানিফ, অন্যতম পরিচালক ড. সাঈদ সিদ্দিক হোসেন বক্তব্য রাখেন এবং পিপলস এন টেক’র কর্মকান্ড তুলে ধরেন। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির ইন্সট্রাক্টর মতিউর রহমান বাপ্পী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহ ফিরোজ, সাবেক শিক্ষার্থী জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন এবং কমিউনিটি সেবায় পিপলস এন টেক’র ভূমিকার কথা তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ বলেন, যে স্বপ্ন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলাম, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে গিয়েই বাংলাদেশের ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার হয়েও আইটি কোর্স সম্পন্ন করি। পরবর্তীতে চাকুরী করতে গিয়ে আইটি সেক্টরে কাজ করতে গিয়ে কোন বাংলাদেশী না পেয়ে হতাশ হই। তখন থেকেই মনে অন্য চিন্তা নিয়ে বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকে আইটির সেক্টেরে নিয়ে আসতে পিপল এন টেক প্রতিষ্ঠা করে। তিনি বলেন, প্রথম দিকে একজন বাংলাদেশী ইয়েলো ট্র্যাক্সি ড্রাইভারকে বেসমেন্টে রেখে তাকে আইটি কোর্স করালে পরবর্তীতে তিনি ভালো বেতনের জব করেন। আমার টার্গেট হচ্ছে ‘নো মোর অড জব’। তিনি বলেন আইটি নিয়ে চার মাসের কোর্স সম্পন্ন করে ৮০ থেকে ২০০ ডলার বার্ষক চাকুরী পাওয়া সম্ভব। তিনি বলেন, গত ১৫ বছরে ৫০০০ শিক্ষার্থী পিপল এন টেক থেকে কোর্স সম্পন্ন করে ভালো বেতনের চাকুরী পেয়েছে। এটাই আমাদের স্বার্থকতা। তিনি জানান, নিউইয়র্কের বাইরে ভার্জেনিয়া এবং বাংলাদেশে পিপল এন টেক-এর শাখা রয়েছে। এছাড়াও ভারতেও পিপল এন টেক কর্মকান্ড ছলছে। তিনি বলেন, পিপল এন টেক-এর কর্মকান্ডের কারণে বাংলাদেশী ছাড়াও বিদশীদের কাছে আমার পরিচয় হয়ে উঠেছে ‘হানিপ ভাই’।
মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ ঘোষণা দেন যে, চলতি বছর এক মিলিয়ন ডলার স্কলারশীপ প্রদান করা হবে। ২৫০জন শিক্ষার্থী এই স্কলারশীপ পাবেন। আমি চাই যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারায় বাংলাদেশী আইটি বিশেষজ্ঞ বৃদ্ধি পাক। প্রসঙ্গত তিনি ফিলাফেলডিয়ায় ড. নীনা আহমেদের প্রার্থীর কথা তুলে ধরেন এবং ড. নীনা বাংলাদেশী অভিবাসীদের জন্য দৃষ্টান্ত বলে উল্লেখ করেন।
অনুষ্ঠানে ফারহানা হানিপ আবেগ-আপ্লুত কন্ঠে বলেন, পিপল এন টেক আমার কাছে সন্তানের মতো। এর প্রতিজন শিক্ষার্থী আমার পরিবারের সদস্য। তারা চাকুরী পেলে আমি সবচেয়ে বেশী খুশি হই। তিনি বলেন, আজ আমাদেরর জন্য বিশেষ দিন, গর্বের দিন। আনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে, অনেক কষ্ট করে আমরা আজকের অবস্থানে এসেছি। এজন্য তিনি বাংলাদেশী সকল মিডিয়া সহ পিপল এন টেক পরিবারের সকলের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ রকম আরো খবর

রিদম আয়োজিত ‘ভালোবাসার রেশ’ অনুষ্ঠান ১৭ ফেব্রুয়ারী

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: ভ্যালেন্টাইন ডে দিবস উপলক্ষ্যে নিউইয়র্কে ‘ভালোবাসার রেশ’বিস্তারিত

  • সিলেটে কুহিনুর আহমদকে গ্রেফতারের নিন্দা ও মুক্তি দাবী
  • ক্ষমতা নিয়ে ইসি-ট্রাষ্টি বোর্ডের মধ্যে টাগ অব ওয়ার
  • মডেলিং সহজ কাজ নয়, চাই আতœবিশ্বাস
  • নারী আসনে মনোনয়ন চান মোমতাজ-ফরিদা
  • ‘বিএনপি রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের শিকার
  • নতুন ভবণ ও ফিউনারেল হোমন প্রতিষ্ঠান পরিকল্পনা
  • জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাধারণ সভায় সিদ্ধান্ত ভবন প্রতিষ্ঠা ও নির্বাহী কমিটির মেয়াদকাল দুই বছর
  • ৯ বছরেই কলেজ ছাত্র বাংলাদেশী কায়রান
  • নিউইয়র্কে ‘শিল্প ও দ্রোহের কুড়ি বছর’ অনুষ্ঠান
  • ফোবানা কনভেনশন ইনক’র প্রতিবাদ
  • মদন মোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সংবর্ধিত
  • ‘বেঙ্গল ডেমোক্রেটিক ক্লাব’র শুভযাত্রা
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.