র্সবশেষ শিরোনাম

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেটে প্রথম নারী কনসাল জেনারেল

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলে ১৫তম এবং প্রথম নারী কনসাল জেনারেল হিসেবে যোগ দিলেন সাদিয়া ফয়জুননেসা। ১ জুন তিনি কাজে যোগ দেন। এই কূটনীতিক ১৯৯৯ সালের ২৫ জানুয়ারী বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন। বর্তমান দায়িত্বে যোগদানের আগে তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (জাতিসংঘ) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সাদিয়া ফয়জুননেসা জার্মানির বার্লিনের বাংলাদেশ দূতাবাসে কনস্যুলার ও কল্যাণ বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ সময় তিনি জার্মানি, অস্ট্রিয়া ও চেক প্রজাতন্ত্রে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের সেবাধর্মী ও স্বার্থরক্ষা সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে কাজ করেছেন। বিদায়ী কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ শামীম আহসানের স্থলাভিষিক্ত হলেন সাদিয়া ফয়জুননেসা।
২০১৩-২০১৬ মেয়াদে তিনি নিউইয়র্কে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে উপস্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করেন। থাইল্যান্ডের ব্যাংককে অবস্থিত ‘এসকাপ’ সদর দপ্তরে বাংলাদেশের উপস্থায়ী প্রতিনিধি ও কাউন্সিলর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন সাদিয়া। এ ছাড়া পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন, ইউরোপ, জাতিসংঘ ও বহুপক্ষীয় অর্থনীতিবিষয়ক উইংয়ে বিভিন্ন সময়ে তাঁর দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা রয়েছে।
জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে উপস্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্ব পালনকালে তিনি বাংলাদেশ ডেলিগেশনের সদস্য হিসেবে ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য’, ‘নিউইয়র্ক ডিক্লারেশন ফর রিফিউজিস অ্যান্ড মাইগ্র্যান্টস’-এর বিভিন্ন আলোচনা ও দর-কষাকষিতে সক্রিয়ভাবে অংগ্রহণ করেন এবং বাংলাদেশের স্বার্থ সমুন্নত রাখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেন। এ ছাড়া তিনি ২০১৪-২০১৬ পর্যন্ত ‘কালচার অব পিস’ রেজ্যুলেশনের ফ্যাসিলিটেটর এবং ‘ইকোসক হিউম্যানিটেরিয়ান রেজ্যুলেশন’-এর কো-ফ্যাসিলিটেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বাংলাদেশ নবম ‘গ্লোবাল ফোরাম অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’-এর চেয়ারম্যান থাকাকালে তিনি টাস্ক টিমের সদস্য হিসেবে কাজ করেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (জাতিসংঘ) হিসেবে তিনি বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা ও এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন আদায়ে একজন সমন্বয়কারী হিসেবে ভূমিকা রাখেন।
চিকিৎসাশাস্ত্রে স্নাতক ডিগ্রিধারী সাদিয়া ফয়জুননেসা ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। চাকরিতে যোগদানের পর তিনি বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস একাডেমিসহ ভারত, জার্মানি, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে পেশাগত কূটনীতিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। জাতীয় টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় তিনি ১৯৯৪ সালে চ্যাম্পিয়ন ও ১৯৯৩ সালে রানার্স আপ হন। সাদিয়া ফয়জুননেসা বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের ‘ক’ শ্রেণিভুক্ত একজন উপস্থাপক। বাঙালী সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রসারে তাঁর ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে। উল্লেখ্য, নিউইয়র্ক কনস্যুলেটের অধীনে রয়েছে কানেকটিকাট, নিউ হ্যামশায়ার, নিউ জার্সি, নিউ ইয়র্ক, মেইন, ম্যাসেচুসেট্স, রোড আইল্যান্ড ও ভারমন্ট অঙ্গরাজ্য।

এ রকম আরো খবর

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত আইএসের শামীমা নাগরিকত্ব হারাচ্ছেন

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেওয়াবিস্তারিত

সীমান্তে জরুরি অবস্থা জারি ট্রাম্পের

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: সীমান্ত দেয়াল নির্মাণের অর্থ সংগ্রহের জন্য সীমান্তেবিস্তারিত

  • ডন পত্রিকার কলাম : ‘বাংলাদেশ পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে যেভাবে’
  • ৬ বছরের মধ্যে আমেরিকান সেনাবাহিনীতে আত্মহত্যার হার সর্বোচ্চ
  • পিছু হটলেন ট্রাম্প!
  • জাতিসংঘের সাথে বাংলাদেশ অত্যন্ত ঘনিষ্ট সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে : রাষ্ট্রদূত মোমেন
  • শীর্ষ ১০ নিরাপত্তা চিন্তাবিদের তালিকায় শেখ হাসিনা
  • পাকিস্তানে পিটিএম : আরেকটি ‘বাংলাদেশ’ গড়ে উঠছে?
  • শেখ হাসিনা এমন নির্বাচন না করলেও পারতেন
  • হাসিনার কারচুপির নির্বাচনের বিরুদ্ধে একাট্টা পশ্চিমাবিশ্ব
  • নির্বাচন নিয়ে জাতিসংঘ-যুক্তরাজ্যের কড়া সতর্কবার্তা
  • জর্জ বুশ সিনিয়র মারা গেছেন
  • ফিরহাদ হাকিম: স্বাধীনতা-উত্তর কলকাতার এই প্রথম মুসলমান মেয়র ঠিক কেমন মানুষ?
  • নিউইয়র্ক ষ্টেট সিনেটর হোজে পেরাল্টার পরলোকগমন
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.