র্সবশেষ শিরোনাম

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী : দুই পরিবারকে অনুদান

আন্দোলনকারীদের ঘরে ফিরতে বললেন দিয়া ও করিমের বাবা-মা

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে রাজধানীর এয়ারপোর্ট রোডে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত কলেজ শিক্ষার্থী দিয়া ও রাজীবের পরিবার বৃহস্পতিবার (২ আগষ্ট) তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা জানান, প্রধানমন্ত্রী শোকাহত দুই পরিবারকে সান্তনা দেন এবং প্রত্যেক পরিবারকে ২০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র অনুদান দেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে নিহত দুই পরিবারের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান। সেখানে তাদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে জাবালে-নূর পরিবহনের একটি বাসের চাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম এবং আবদুল করিম রাজীব নিহত হয়।
এদিকে বাসচাপায় নিহত দুই কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর ঘাতদের বিচারসহ ৯ দফা দাবিতে আন্দোলনরত সহপাঠি শিক্ষার্থীদের ঘরে ফিরে যেতে অনুরোধ করেছেন দিয়া খানম মিম আর আবদুল করিমের বাবা-মা। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের মাধ্যমে এই অনুরোধ জানান দিয়ার বাবা জাহাঙ্গীর ফকির ও করিমের মা মহিমা বেগম।
জাহাঙ্গীর কবির বলেন, ‘সবার কাছে আমার অনুরোধ, যার যার সন্তান, আমরা অভিভাবকরা বুঝিয়ে ঘরে ফিরিয়ে নিয়ে যাই। আমরা একটা শক্ত বিচার পাব, আমরা আশা করি। এটা প্রধানমন্ত্রীর নিজের মুখের কথা।’
মহিমা বেগম বলেন, ‘সবাই আমার সন্তানের জন্য রাস্তায় নেমেছ। সবই হয়ে গেছে। এখন তোমরা যে যার ঘরে উঠে যাও। তোমাদের সবার কাছে অনুরোধ, তোমরা ঘরে ফিরে যাও।’
উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসের জন্য অপেক্ষার সময় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাসের নিচে চাপা পড়েন ঢাকার শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দিয়া ও করিম। ওই দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর থেকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলছে। আজকেও শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি থাকলেও স্কুল, কলেজের ড্রেস পড়ে রাস্তায় নেমে এসেছে। শুরুর কয়েকদিনের মত ধ্বংসাতœক কার্যক্রম পরিহার করে তারা রাস্তায় অবস্থান করছে।
শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী: অপরদিকে রাজধানীতে বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২ আগষ্ট) দুপুরে দাবিগুলো মেনে নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে:
১ . শিক্ষার্থীদের জন্য শহীদ রমিজউদ্দিন স্কুলকে ৫টি বাস প্রদান
২. রমিজউদ্দিন স্কুল সংলগ্ন বিমানবন্দর সড়কে আন্ডারপাস নির্মাণ
৩. দেশের প্রতিটি স্কুল সংলগ্ন রাস্তায় স্পিড বেকার এবং শুধু স্কুলের জন্য প্ল্যাকার্ড সম্বলিত বিশেষ ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগ করা ।

এ রকম আরো খবর

দৈনিক জনকন্ঠে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

বাংলা পত্রিকা রিপোট: বাংলাদেশের দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকায় সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকাবিস্তারিত

  • নাইজেরিয়া-য় বাংলাদেশ হাইকমিশনে জাতীয় শোক দিবস পালন
  • নিউইয়র্কে প্রবাসীদের তোপের মুখে ইমরান এইচ সরকার : লাঞ্ছিত
  • বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম আর নেই
  • দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই
  • মানি রেমিটেন্স প্রতিষ্ঠান ‘ফামাক্যাশ’র আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু
  • জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধিদের নিয়ে রাজশাহী নিউজ টুয়েন্টিফোরের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
  • সব হিসাবই আরিফের পক্ষে
  • রাস্তা বন্ধ, রাষ্ট্রের মেরামত চলছে : শিশুরাই এখন নিয়ন্ত্রণ করছে রাজপথ : উই ওয়ান্ট জাস্টিস
  • সাংবাদিক মোয়াজ্জেম হোসেন আর নেই
  • শোকাবহ আগস্ট শুরু
  • মিষ্টি নিয়ে কামরানের বাসায় আরিফ 
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.