র্সবশেষ শিরোনাম

মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০১৯

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

নিউইয়র্কে উৎসব গ্রুপ বিপিএল ইউএসএ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু ॥ লাইভ সম্প্রচারে টাইম টেলিভিশন-এর চমক ॥ ভূয়শী প্রশংসা বিশ্বব্যাপী : ক্রিকেটে কমিউনিটিতে নতুন দিগন্ত

সালাহউদ্দিন আহমেদ: নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে উৎসব গ্রুপ বাংলাদেশী প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) ইউএসএ-২০১৮ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে। বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় শনিবার এই টুর্নামেন্ট শুরু হয়। যৌথভাবে এই টুর্নামেন্টের আয়োজক হচ্ছে নর্থ আমেরিকান ক্রিকেট প্লেয়ার্স এসোসিয়েশন ও এনওয়াইবিসিএল। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা ও বিভাগের নামে ১৬টি দল অংশগ্রহণ করছে। এই টুর্নামেন্টের গ্র্যান্ড স্পন্সর হচ্ছে ‘উৎসব গ্রুপ’ আর মিডিয়া পার্টনার হচ্ছে ‘টাইম টেলিভিশন ও বাংলা পত্রিকা’। আর এই টুর্নামেন্টের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাংলাদেশী কমিউনিটিতে নতুন দিগন্তের শুভ সূচনা হলো। দেশ-বিদেশের বিপুল সংখ্যক ক্রিকেট ভক্ত টাইম টেলিভিশনের মাধ্যমে উদ্বোধনী ম্যাচ সরাসরি উপভোগ করেন। এজন্য অনেক ক্রিকেটামোদী মেইলে বিপিএল ইউএসএ টি-২০ টুর্নামেন্ট আয়োজক, পৃষ্ঠপোষক উৎসব গ্রুপ এবং মিডিয়া পার্টনার বাংলা পত্রিকা ও টাইম টেলিভিশন-এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। টুর্নামেন্টর উদ্বোধনী ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করায় বিশ্বব্যাপী ক্রিড়ামোদীরা টাইম টেলিভিশন-এর উদ্যোগের ভূয়শী প্রশংসা করেছেন।
শনিবার (৬ অক্টোবর) মেঘলা সকাল আর মৃদুমন্দ বাতাসে নিউইয়র্কের রুজডেলে প্রতিষ্ঠিত গাছ-গাছালী ঘেরা আইডলউল্ড ক্রিকেট মাঠে লাল-সবুজের একগুচ্ছু বেলুল উড়িয়ে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন গ্র্যান্ড স্পন্সর উৎসব গ্রুপ-এর চেয়ারম্যান রায়হান জামান। উদ্বোধনী ম্যাচে টুর্নামেন্টের এ গ্রুপে ঢাকা স্কোরপিওন্স সহজেই ৮ উইকেটে সিলেট জালালিয়ান্স-কে পরাজিত করে শুভ সূচনা করে। খেলায় টসে হেরে সিলেট জালালিয়ান্স নির্ধারিত ২০ ওভারের খেলায় ৫ উকেটের বিনিময়ে ১২৭ রান সংগ্রহ করে। অপরদিকে ঢাকা স্কোরপিওন্স দুই উকেটের বিনিময়ে ১৫ দশমিক ১ ওভারে ১৩১ রান সংগ্রহ করে জয়ী হয়। উদ্বোধনী খেলা শেষে এই ম্যাচের সেরা খেলোয়ার ঢাকা স্কোরপিওন্স-এর নাজমুল সিদ্দিকের হাতে ট্রফি তুলে দেন টাইম টেলিভিশন-এর সিইও এবং বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক আবু তাহের। খেলায় নাজমুল সিদ্দিক ৬১ রান সংগ্রহ করে। উদ্বোধনী ম্যাচ টাইম টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির সভাপতি সুমন খান এবং সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম জনি। এসময় টাইম টেলিভিশন-এর অন্যতম পরিচালক সৈয়দ ইলিয়াস খসরু, উৎসব গ্রুপের মার্কেটিং ডিরেক্টর সৈয়দ এ আল আমীন ও বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তা তৈয়বুর রহমান টনি অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির সহ সভাপতি মাসুম রহমান। উদ্বোধনী দিনে নিউইয়র্কের বিভিন্ন মাঠে আরো ৭টি খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
উদ্বোধনী বক্তব্যে রায়হান জামান প্রথমবারের মতো নিউইয়র্কে বাংলাদেশীদের উদ্যোগে টি-২০ টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রশংসা করে বলেন, আমেরিকার ক্রিকেট ইতিহাসে আজকের দিনটি একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে। সেই সাথে আমরা উৎসব গ্রুপ আর মিডিয়া পার্টনার টাইম টেলিভিশন ও বাংলা পত্রিকা সহ সংশ্লিস্ট সবাই এই মাইল ফলকের অংশীদার। সবার সহযোগিতায় এই টুর্নামেন্ট সফল ও সার্তক হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
উদ্বোধনী ম্যাচ শেষে অতিথি হিসেবে বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক ও টাইম টেলিভিশন-এর সিইও আবু তাহের তার বক্তব্যে টি-২০ টুর্নামেন্টের সাফল্য কামনা করে বলেন, সবার সহযোগিতায় এই ক্রিকেট টুর্নামেন্টেকে আরো এগিয়ে নিতে হবে। ক্রিকেট-কে আমেরিকানদের কাছে জনপ্রিয় করতে এমন টুর্নামেন্ট ভূমিকা রাখবে। তিনি বলেন, আজ আমেরিকাতে আমাদের কমিউনিটির সবার জন্য নতুন অভিজ্ঞতার দিন। নতুন টুর্নামেন্টের পাশপাশি টাইম টেলিভিশন এই প্রথমবারের মতো কোন খেলা সরাসরি মাঠ থেকে সম্প্রচার করছে। এই পথ চলা আগামী দিনে সবার পাথেয় হয়ে থাকবে। তিনি বলেন, এটি টুর্নামেন্ট বাংলাদেশী সহ যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেটারদের জন্য একটি প্রেরণা, এটি তাদেরকে আরও ভাল খেলতে উৎসাহিত করবে।
বিপিএল টি-২০ ২০১৮’র দলসমূহ হলো (দলগুলোর স্বত্তাধিকারী সহ): সিলেট সুলতান (সারোয়ার চৌধুরী মওলুদ), সিলেট জালালিয়ান (ইফতেখার বিপ্লব), সিলেট ঈগলস (নাবিলা রহমান), বিয়ানীবাজার ইয়াং স্টার (শাহানুল করিম), সিলেট স্ট্রাইকার ও ওয়ারিয়র (ইরফান খান, লিসান চৌধুরী, লিসান চৌধুরী, রাজু আহমেদ, সালেহ আহমেদ), ঢাকা স্করপিওন (তানভীর এইচ চৌধুরী বাবু) বাবু, ঢাকা গ্লাডিয়েটর (মারজান আলম), মুন্সিগঞ্জ বিক্রমপুর (আরিফুল ভূঁইয়া জিয়া), কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স নিউইয়র্ক (মেহেদী হাসান সোহাগ), কুমিল্লা আইডিয়াল (রাশেদুল ইসলাম), সাতক্ষীরা টাইগার্স (রুমেল খান, সাদমান খান), নোয়াখালী ডায়নামাইটস (আরমান চৌধুরী), নোয়াখালী নেমেসিস (জাহিদুল ইসলাম, মাহাদি হাসান), বরিশাল রয়েলস (ফয়সাল আহমেদ, আসমা খান, তানভীর ভূঁইয়া), সন্দ্বীপ চিতাজ (সজীব জামান) এবং চিটাগাং লায়ন্স (আশরাফ খালিদ নেওয়াজ, ফরহাদ মাহমুদ, সজীব জামান)।
টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির সভাপতি সুমন খান ও সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম জনি জানান, বাংলাদেশীদের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট, নিউইয়র্কে প্রতিবছর প্রায় ৪০টির বেশি দল নিয়ে এনওয়াইবিসিএল ক্রিকেট লীগ হয়, যেখানে ১০০০ এর বেশি বাংলাদেশী খেলোয়ার আছেন। নিউইয়র্কে স্কুল ক্রিকেট, এনওয়াইপিডি ইয়্যুথ লীগসহ অন্যান্য লীগ হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয় কমবেশী সবাই এখানে ক্রিকেটপ্রেমী হলেও অনেকেই জানেন না স্থানীয় ক্রিকেট লীগের কথা। তাই প্রবাসে যেসব স্থানীয় ক্রিকেট খেলোয়াড় আছেন তাদের মধ্যে থেকে ভবিষ্যতের সাকিব, মাশরাফি, তামিমদের খুঁজে বের করাই আমাদের লক্ষ্য। আমরা চাই, আমাদের তরুণ, উদীয়মান ক্রিকেট খেলোয়াড়রা বের হয়ে আসুক এবং নিউইয়র্কের এই টুর্নামেন্টে খেলে বাংলাদেশ জাতীয় দলে জায়গা করে নিক। আর এই কাজে প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যবসায়ীরা সাহায্যের হাত বাড়ালে খেলোয়াড়দের পাশাপাশি কমিউনিটিও লাভবান হবে।
টুর্নামেন্ট কমিটির কর্মকর্তারা তাদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট পরিচালনা ও সফল করতে সবার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
প্রতিযোগিতামূলক এই টুর্নামেন্টে মোট ১৬টি দল অংশগ্রহণ করবে। প্রতিটি দলে একজন আইকন ও তিনজন হোম টাউন খেলোয়াড়, সাতজন এ ক্যাটাগরি, তিনজন বি ক্যাটাগরিসহ মোট ১৪জন খেলোয়াড় থাকবে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে ২টি দল কোয়ার্টার ফাইনাল খেলবে, এরপর সেমি এবং ফাইনাল খেলা হবে। সর্বমোট ১০,০০০ ডলার নগদ অর্থ পুরস্কার থাকবে। যেখানে চ্যাম্পিয়ন দল পাবে নগদ ৫,৫০০ ডলার এবং রানার্সআপ ২,০০০ ডলার। এছাড়াও থাকবে প্রতি খেলায় সেরা খেলোয়ারের পুরস্কারসহ চ্যাম্পিয়ন ট্রফি ।
এছাড়াও গ্র্যান্ড স্পন্সর হিসেবে থাকছে ১০ বছর ধরে ক্রিকেটের সাথে জড়িত রেন্ডী বি সিগেল, গোল্ড এনওয়াই ইন্সুরেন্স, জেরিন বুটিক, আরমান চৌধুরী (সিপিএ), কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও মূলধারার রাজনীতিবিদ এবং ব্যবসায়ী গিয়াস আহমদ।
উল্লেখ্য, বাকানা আয়োজিত ক্রিকেট লীগের পথ ধরেই চারর বছর ‘এনওয়াইবিসিএল’ টুর্নামেন্ট চলার পর আমরাই প্রথম বিপিএল টি-২০ ২০১৮ আয়োজন করা হয়েছে। বিপিএল যুক্তরাষ্ট্রের রেজিষ্টার্ড করা। তাই এই নাম নিয়ে কোন সমস্যা বা বিভ্রান্তি হবে না বলেই আমাদের বিশ্বাস। আর প্রতিটি দলের এন্টি ফি থাকবে সবমিলিয়ে ১৬,০০ ডলার। বাংলাদেশের সাবেক ক্যাপ্টেন খালেদ মাসুদ পাইলট ছাড়াও সাবেক খেলোয়ারগণ অংশ নেবেন এই টুর্নামেন্টে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। এছাড়াও নিউইয়র্ক সহ নিউজার্সী, মিশিগান, টেক্সাস প্রভৃতি অঙ্গরাজ্য থেকে প্রবাসের ক্রিকেট খেলোয়ার অংশ নেবেন। সপ্তাহের প্রতি শনিবার নিউইয়র্কের কুইন্স বরোর বিভিন্ন ক্রিকেট মাঠে একাধিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। টাইম টেলিভিশন পরবর্তীতে টুর্নামেন্টের সেমি ফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে।

এ রকম আরো খবর

নিউইয়র্ক ফুটবল লীগ শুরু ১৬ জুন

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা আয়োজিত চলতি বছরের নিউইয়র্কবিস্তারিত

  • প্রতীক্ষা শেষে স্বপ্নের শিরোপা জয়
  • স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে ব্রঙ্কস ইউনাইটেড চ্যাম্পিয়ন যুব সংঘ রানার্স আপ
  • বিশ্বকাপের আর বাকি ১০০ দিন
  • সিলেট সুলতান্স’র শিরোপা জয় ॥ ঢাকা স্বরপিয়ন্স রানার্স আপ
  • ঈগলসকে হারিয়ে সুলতানস সেমিতে উন্নীত ॥ ২৭ অক্টোবর ফাইনাল
  • টাইম টেলিভিশনে সম্প্রচার এবং আমার চ্যালেঞ্জ
  • উদ্বোধনী ম্যাচে ঢাকা স্করপিওন্স’র কাছে সিলেট জালালিয়ান্স ৮ উইকেটে পরাজিত
  • নিউইয়র্কে বিপিএল ইউএসএ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু ৬ অক্টোবর
  • নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিপিএল ইউএসএ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট
  • অপরাজিত চ্যাম্পিয়ান সোনার বাংলা ॥ আইসাব রানার্স আপ
  • ক্রিকেটে বিশ্বকাপ অর্জন করতে হলে ভালো খেলা ধরে রাখতে হবে
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.