র্সবশেষ শিরোনাম

শনিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৮

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

টাইম টেলিভিশনে গানবাংলা টেলিভিশনের প্রধান উপদেষ্ঠা দেলোয়ার হোসেন রাজা

বাংলা সঙ্গীতের বিশ্বায়নই হচ্ছে আমাদের লক্ষ্য

বাংলা পত্রিকা রিপোর্ট: বাংলাদেশের বিখ্যাত মিউজিক টেলিভিশন গানবাংলার প্রধান উপদেষ্ঠা ও পরিচালক শিল্পপতি দেলোয়ার হোসেন রাজার স্বপ্ন গানবাংলা টেলিভিশনের মাধ্যমে বাংলা সঙ্গীত ও সংস্কৃতিকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জনপ্রিয় করে তোলা। তিনি বলেন, বাংলা সঙ্গীতের সুর, লহরী, তাল এর আবেদন পৃথিবীর যেকোন মানুষকে মুগ্ধ ও আকৃষ্ট করার ক্ষমতা রাখে। এটাকে সময়োপোযোগি করে নতুন প্রজন্ম ও বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরতে হবে। যা সম্ভব হলে বিশ্ব সংস্কৃতির মঞ্চে সম্ভাবনার এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন করতে পারে বাংলাদেশ।
অল্প সময়ে গানবাংলা টেলিভিশনের যে আবেদন সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে এটা তারই প্রমাণ। আমি গর্বিত যে বিশ্বের যেখানেই যাচ্ছি সেখানেই গানবাংলা টেলিভিশনের নাম,খ্যাতি এবং এর যুগান্তকারী পরিবেশনা নিয়ে মানুষ কথা বলছে। তারা বিষ্ময়ে বিমুঢ়। বাংলাদেশের মত দেশে কেউ সঙ্গীতকে এই পর্যায়ে নিয়ে আসতে পারবে এটা যেন অনেকের কাছেই ছিল আকাশ কুসুম কল্পনা। কিন্তু এটাই এখন বাস্তব। আর এটা দেখিয়ে দিয়েছে গানবাংলা টেলিভিশন।
নিউ ইয়র্কের জনপ্রিয় টাইম টেলিভিশনের সাথে এক একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি একথা বলেন। অতি সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফসঙ্গী হিসেবে শিল্পপতি দেলোয়ার হোসেন রাজা নিউ ইয়র্ক আসেন। এ সময় তিনি এসেছিলেন টাইম টেলিভিশনের নিয়মিত পরিবেশনা টাইম পলিটিক্স অনুষ্ঠানে। যেখানে দেলোয়ার হোসেন রাজা তুলে ধরেন গানবাংলা টেলিভিশন নিয়ে তার স্বপ্নের গল্প। একই সময় তিনি এই টেলিভিশনের প্রধান বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনের বহুল আলোচিত জনপ্রিয় শিল্পী কৌশিক হোসেন তাপসের কথা তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, কৌশিক হোসেন তাপস হচ্ছেন আমার সন্তান। বাবা হিসেবে এমন একজন সন্তানের পিতা হতে পেরে আমি গর্বিত। দেশ বিদেশে যখন গানবাংলার সঙ্গীত ও পরিবেশনা নিয়ে বিষ্ময় ও উচ্ছাস প্রকাশ করে অনেকে তখন আমি নিজেকে অত্যন্ত সৌভাগ্যবান মনে করি।
তিনি বলেন, তাপসের স্বপ্ন হচ্ছে বাংলা সঙ্গীতের বিশ্বায়ন। এই সপ্নকে বাস্তবায়ন করতে গিয়ে তিনি বাংলা সঙ্গীত ও মিউজিকে অন্তর্ভুক্ত করেছেন বিদেশী মিউজিশিয়ান ও শিল্পীদের। পূর্ব ইউরোপ থেকে বেশ কয়েকজন বাদক এসেছেন বাংলাদেশে। আমাদের অতিথি হিসেবে বাংলা সঙ্গীতে তারা সম্পৃক্ত করেছেন নিজেদের। গানবাংলার গানের জনপ্রিয়তার অনেকগুলো কারণ আছে। এর অন্যতম হচ্ছে প্রডাকশন এবং মান। যাতে তাপস কখনো আপোষ করেন না। যে কোন গানের সেট, সাউন্ড, ইফেক্ট, কস্টিউম, লাইট, মেকআপ, মিউজিক সহ অনুসাঙ্গিক যেকোন বিষয়ে আমরা আন্তর্জাতিক মান অনুসরন করে থাকি। এক্ষেত্রে গানবাংলা কোন কিছুতে আপোষ করে না।
গানবাংলা টেলিভিশনের যে কটি গান প্রচারিত হয়েছে তার প্রোডাকশন কস্ট চিন্তাও করা যাবে না। এখনো আমরা এটাকে বানিজ্যিক দৃষ্টিভঙ্গীতে দেখছিনা। এসবের গুনগত মান ও আন্তর্জাতিকতা বিবেচনায় রেখেই আমরা কাজ করছি। বাংলা সঙ্গীতের বিশ্বায়নের অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাই আমাদের কর্মপ্রয়াসের মুলমন্ত্র।
এক সময় ছিল যখন বাংলার চাইতে হিন্দী গানের দিকে ঝুঁকে পড়েছিল আমাদের নতুন প্রজন্ম। এই অবস্থায় আমার ছেলে কৌশিক এটাকে পরিবর্তন করার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে লিজেন্ড শিল্পীদের নিয়ে ব্যতিক্রমী পরিবেশনা শুরু করলো সে। এআর রহমানের আদলে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতে অংশ নিলেন সবাই। এর মধ্যে ছিলেন, আয়ুব বাচ্চু, জেমস, বিপ্লব আর সাবিনা ইয়াসমীন সহ আরো অনেকে। এটিএন বাংলা টেলিভিশনে তখন সে মিউজিক বিভাগের দায়িত্বে ছিল। এই অবস্থায় সবাইকে নিয়ে তাপস সঙ্গীতে নতুন এক বিপ্লবের সূচনা করেছিল। এই অবস্থায় কৌশিক দেশ ও দেশের বাইরে সকল বাংলাভাষীদের কিভাবে বাংলা গানে ফিরিয়ে আনা যায় সেটা চিন্তা করলো। মনে করেন আগের মত শুধু একতারা বা তবলা দিয়ে পরিবেশন করা সঙ্গীত নতুন প্রজন্মকে আকৃষ্ঠ করছেনা। বর্তমান বিট বা হৃদম না হলে তারা গান শুনতে চায় না। এজন্য আমরা সময় বা বিশ্বায়নের কথা বিবেচনা করেই এরমধ্যে পরিবর্তনের চিন্তা করলাম। যা গানবাংলা টেলিভিশন মিউজিকের পার্থক্য ও বৈশিষ্ট। ২২টি দেশের ৩৭জন বিখ্যাত মিউজিশিয়ানদের আমরা এনেছি। লক্ষনীয় হলো গান কিন্তু গাচ্ছে বাঙ্গালীরা। আর মিউজিকে রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেরা মিউজিশিয়াররা। লিথুনিয়া বা রাশিয়ানদের নিয়ে আসা হয়েছে। আলাপ আলোচনা ও সঙ্গীতের সুর আবেদনকে জেনেই তারা আসেন।
বাংলাদেশে এফডিসি ছাড়া আর কোন জায়গা নেই যেখানে এত বিশাল আয়োজনের শুটিং সম্ভব। এজন্য আপাতত এফডিসির স্টুডিও ভাড়া করে কাজ হচ্ছে। তবে আমরা আশা করছি আমাদের নিজস্ব ভবনে একটি আন্তর্জাতিক মানের স্টুডিও তৈরী হবে সহসাই।
আমার ছেলে তাপস নিজে একজন শিল্পী। কিছুদিন আগে সে ভারতের দাদা সাহেব ফালকে ও বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে। উইন্ড অব চেঞ্জ মিউজিকের মাধ্যমে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্টায় উজ্জিবন সৃষ্টি করাই হচ্ছে আমাদের অন্যতম লক্ষ্য। বাংলাদেশের লিজেন্ডারী শিল্পী যারা বেঁচে আছেন তাদের নিয়ে কিছু করা আমাদের অন্যতম লক্ষ্য। আব্দুল জব্বার সাহেব মারা গেলেন মাঝপথে। অনেকেই হারিয়ে যাচ্ছিলেন আমরা তাদের বাঁচিয়ে রাখতে চাই ইতিহাসের পাতায় জীবন্ত চরিত্র হিসেবে। বাংলাদেশের সঙ্গীতকে আমরা বিশ্বের এক নম্বর সঙ্গীত হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। এর পৃষ্টপোষকতায় দেশ ও প্রবাসের সকলেই এগিয়ে আসবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা। আমরা আমাদের বন্ধু ও সহযোদ্ধা খুজে নেবো। বিশ্বের ৩৫ থেকে ৪০ কোটি বাংলাভাষীর হৃদয় ও মননে বাংলা সঙ্গীতকে আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই।
সময় ও কালকে সামনে রেখে আমাদের অনুষ্ঠানমালাকে সাজানো হয়। যেমন রোজা মাসে ইসলামিক গান ও আজান প্রচার করি। কারণ এটা হচ্ছে বিশাল একটি জনগোষ্টির বিশ্বাসের বিষয়। তাদের সেই চেতনাকে আমাদের সম্মান দেখাতে হবে।
মনে রাখতে হবে রাজনীতি ও গান একে অন্যের পরিপুরক। তবে সেখানে মুক্ত চিন্তার বিষয়টি মুখ্য। সঙ্গীতকে এগিয়ে নিতে গান একটি বড় হাতিয়ার। সেই হাতিয়ারকে সঠিক, সুললিত ও ঐক্যের চেতনা হিসেবে কাজে লাগাতে হবে। আল্লাহ যেন আমাদের দেশকে সেই ঐক্য ও চেতনায় এগিয়ে নেন এটাই গান বাংলার সকল উদ্যোগ ও প্রয়ার্সে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

এ রকম আরো খবর

এনাম চৌধুরীর মাতৃবিয়োগ

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্ক ও নিউজার্সীর বাংলাদেশী কমিউনিটির পরিচিত মুখ, বিশিষ্ট সংষ্কৃতিবিস্তারিত

প্রবাস থেকে যারা মনোনয়ন চাচ্ছেন

নিউইয়র্ক: আগামী ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের একাদশ নির্বাচন। নির্বাচনবিস্তারিত

এম এম শাহীনের বিকল্পধারায় যোগদান

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক ঠিকানা’র সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি, বিএনপির সাবেকবিস্তারিত

  • কমিউনিটির পরিচিত মুখ জামান তপনের মাতৃবিয়োগ
  • অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবী
  • ‘বাংলাদেশ উন্নয়ন মেলা’য় অগ্রগতির জয়গান
  • মুক্তধারার সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচী
  • ব্রঙ্কসের খলিল বিরিয়ানীতে হালাল টার্কির অর্ডার নেয়া হচ্ছে
  • নিউজার্সীর পেটারসনে ‘বাংলাদেশ বুলেবার্ড’ নামে সড়ক হচ্ছে
  • কবীর’স বেকারীর প্রতিষ্ঠাতা হুমায়ুন কবীর নেই
  • মৌলভীবাজারে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির রাজনীতি বিরাজমান
  • নিউইয়র্ক হামলা : বাংলাদেশী আকায়েদ দোষী সাব্যস্ত
  • নিউইয়র্কের ৯টি সাপ্তাহিকের সম্পাদক/প্রকাশকদের নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত
  • ব্রাজিলে জাতীয়তাবাদী যুবদল-এর ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
  • ৬ নভেম্বর মঙ্গলবার সারাদিন ভোট
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.