র্সবশেষ শিরোনাম

সোমবার, জুন ২৫, ২০১৮

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

ড. সিদ্দিকের বিবৃতির জবাবে টাইম টেলিভিশন কর্তৃপক্ষের বিবৃতি

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: গত ২৩ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার রাত ১০টায় প্রচারিত একটি খবর নিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান। এ বিষয়ে টাইম টেলিভিশনের বক্তব্য:
আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কোন রিপোর্ট করেনি টাইম টেলিভিশন। একজন ব্যক্তিকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগে দীর্ঘদিন থেকে বিভেদ বিতর্ক চলছে। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুন্নবী ও সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরীর দেয়া বিবৃতি ও বিবৃতিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অফিসের সীল স্বাক্ষর নিয়ে সৃষ্টি হয় ব্যাপক বিতর্ক। কেউ কেউ এটাকে বানোয়াট বলেও অভিহিত করেন। এ সময় দেশে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সাথে টাইম টেলিভিশনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি নিউইয়র্কে ফিরেই এবিষয়ে আমার বক্তব্য দেবো।
ড. সিদ্দিক বেশ কিছুদিন আগে ফিরে এলেও সভাপতি হিসেবে বিষয়টি খোলাসা করছিলেন না। বিভিন্ন মিডিয়া এবিষয়ে তার বক্তব্য জানতে চাইলেও তিনি মৌনতা অবলম্বন করছিলেন। এই অবস্থায় গত ২১ ফেব্রুয়ারী জাতিসংঘ বাংলাদেশ মিশনে সাবেক ছাত্রনেতা ও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অন্যতম নেতা কাজী কায়েসের সাথে তিনি বিষয়টি নিয়ে তার অবস্থান পরিষ্কার করেন।
ড. সিদ্দিকুর রহমানের অনুমতি নিয়েই টাইম টেলিভিশনের পক্ষ থেকে তার বক্তব্য রেকর্ড করা হয়।
যে বিষয়ে সাধারণনের কৌতুহল আগ্রহ দীর্ঘদিনের তা অবশ্যই রিপোর্টযোগ্য। এবং টাইম টেলিভিশন সেই রিপোর্টটিই প্রকাশ ও প্রচার করেছে।
আওয়ামী লীগ প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ অফিস থেকে যা রিসিভ করা হয়েছে সে বিষয়ে সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানের বক্তব্যের কোন অসঙ্গতি আছে কিনা সেটা জানাতেই গুরুত্বপূর্ন মনে করা হয়েছে এই রিপোর্টি।
এখানে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কোন কথা বলা হয়নি। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মী যেমন এই রিপোর্ট প্রকাশ করার জন্য টাইম টেলিভিশনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ঠিক তেমনি যে কারো এর সাথে দ্বিমত প্রকাশেরও অধিকার রয়েছে ।
ড. সিদ্দিক যা বলেছেন, টাইম টেলিভিশন যথার্থভাবেই তা হুবহু প্রচার করেছে। পরদিন তিনি টাইম টেলিভিশনের সাথে কথা বলেন। সেটাও প্রচার করা হয়েছে হুবহু। যা তিনি তার এই বিবৃতিতে উল্লেখ করেননি। ড. সিদ্দিক যে শব্দ আপত্তিকর বলেছেন সেটাও তুলে ধরা হয়েছে তার বিবৃতিতে। এরপরও ড. সিদ্দিক যদি মনে করেন যে প্রচারিত রিপোর্টের কোন অংশ অসত্য তাহলে তা অবশ্যই চ্যালেঞ্জ করতে পারেন। প্রয়োজনে আইনের আশ্রয় নেয়ার অধিকার রয়েছে তার।
টাইম টেলিভিশনের কাছে ড. সিদ্দিকের পুরো বক্তব্যের হুবহু রেকর্ড আছে। আওয়ামী লীগ নেতা কাজী কায়েসের সাথে তিনি কথা বলেছেন। তিনিও জানেন সেখানে কোন বানোয়াট কথা আছে কিনা।
মুল বিষয়কে পাশ কাটাতে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে কেউ যদি টাইম টেলিভিশন দর্শক ও শুভান্যুধায়ীদের বিভ্রান্ত, এর ভাবমুর্তি নষ্টের চক্রান্ত করেন, তাহলে অগনিত দর্শক ও ভক্তদের স্বার্থে পুরো ভিডিওটি হুবহু প্রচার করবে টাইম টেলিভিশন।

এ রকম আরো খবর

বর্ণাঢ্য আয়োজনে নিউইয়র্কে বইমেলা’র উদ্বোধন

নিউইয়র্ক: ‘বই হোক আমাদের উত্তরাধিকার’ শ্লোগানে নিউইয়র্কে শুক্রবার থেকে শুরুবিস্তারিত

শাকিল আহমদের দাফন সম্পন্ন

আহবাব চৌধুরী খোকন: নিউইয়র্কে অকাল প্রয়াত শাকিল আহমেদের দাফন গতবিস্তারিত

এন মজুমদার পুনরায় বোর্ড মেম্বার মনোনীত

নিউইয়র্ক: ব্রঙ্কস কমিউনিটি বোর্ড-৯ এর সদস্য বাংলাদেশী আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলেরবিস্তারিত

  • মাকসুদা আহমেদ বিএসিএ’র ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক
  • বাংলাদেশ সরকারের নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করেছি
  • নিউইয়র্কে শুক্রবার থেকে ৩দিনব্যাপী বইমেলা শুরু
  • যুক্তরাষ্ট্র আ. লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিক হাসপাতালে
  • সিলেট এমসি কলেজ এলামনাই এসোসিয়েশনের বনভোজন ২৯ জুলাই
  • বাংলাদেশী-আমেরিকান মিজান চৌধুরীকে বিজয়ী করার আহ্বান
  • জ্যাকসন হাইটসে চাঁদ রাত উৎসব
  • জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের উদ্যোগে সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত ॥ ১২/১৫ হাজার মুসল্লীর অংশগ্রহণ : নিউইয়র্কসহ উত্তর আমেরিকায় পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত
  • পত্রিকা ডেলিভারী, বিজ্ঞাপণসহ অন্যান্য বিষয় আলোকপাত
  • নিউইয়র্কে ঈদের জামাত
  • ‘মিডিয়ায় পেশাগত প্রতিযোগিতা বাড়ুক’
  • যারা  সন্দেহ ছড়ায় তারা সবচেয়ে ঘৃণিত ব্যক্তি : ইমাম আবু জাফর বেগ
  • error: Content is protected !! Please don\'t try to copy.