র্সবশেষ শিরোনাম

বুধবার, জুন ২৮, ২০১৭

বাংলা পত্রিকা

Main Menu

সপ্তাহের শুরুতে সম্পূর্ণ নতুন সংবাদ নিয়ে

সেই শার্লি এবডোর বিরুদ্ধে এবার ইতালিতে ক্ষোভ

30094_Charle-Hebdo

এবার সেই শার্লি এবডো ম্যাগাজিনের বিরুদ্ধে ইতালিতে তীব্র ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি ইতালিতে ভয়াবহ ভূমিকম্পে কমপক্ষে ৩০০ মানুষ নিহত হয়েছেন। তাদেরকে নিয়ে স্যাটায়ার করেছে এ ম্যাগাজিনটি। তারা নিহতদের দেহকে বিভিন্ন আকৃতির ‘পাস্তা’ হিসেবে দেখিয়েছে। এ নিয়ে শুক্রবার ইতালিতে ব্যাপক সমালোচনা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে রোমে ফরাসি দূতাবাস তার ওয়েবসাইটে একটি বিবৃতি দিয়েছে। তারা বলেছে, এই স্যাটায়ার ফ্রান্সের অবস্থানের প্রতিনিধিত্ব করে না। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। উল্লেখ্য, পাস্তা হলো ইতালিয়ান একটি ডিশ বা খাবার মেনু। আটার সঙ্গে পানি মিশিয়ে লেই তৈরি করে তা চাপ দিয়ে বিভিন্ন আকৃতির চ্যাপ্টা খাবার বানানো হয়। এ খাবারকে পাস্তা বলা হয়। ইতালির নিহতদের দেহকে সেই পাস্তা হিসেবে উপস্থাপন করেছে ম্যাগাজিনটি। এর আগে এই ম্যাগাজিনটি মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.)কে নিয়ে ব্যাঙ্গচিত্র প্রকাশ করে। ২০১৫ সালে এ ম্যাগাজিন অফিসে সন্ত্রাসী হামলা হয়। তার নিন্দা জানানো হয় বিভিন্ন দেশে। কিন্তু এবারে তারা তাদের ব্যাঙ্গচিত্র বা কার্টুনের শিরোনাম দিয়েছে ‘আর্থকুয়াক ইতালিয়ান স্টাইল’ বা ইতালিয় ধরনের ভূমিকম্প। এতে দেখানো হয়েছে একজন টেকো মানুষ দাঁড়িয়ে আছেন। তার শরীর ঢেকে আছে ‘পেনে ইন টম্যাটো সক’ দিয়ে। তার পাশে আরেকজন টেকো নারীকে দেখানো হেেছ অনেকটা তার কাছাকাছি। শেষ পর্যন্ত ধসে পড়া ভবনের ভিতর থেকে পা বের হয়ে থাকা দেখা যাচ্ছে। সেখানে লেখা ‘লাসাগনে’। গত সপ্তাহে ইতালিতে ভূমিকম্পে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে আমাট্রিস শহর। এ শহরটি ‘আমারট্রিসিয়ানা’ নামের পাস্তা সসের জন্য বিখ্যাত। এ সসের ওপর ভিত্তি করে এ শহরটির নামকরণ হেেছ। শহরটির মেয়র সার্জিও পিরোজি গত ২৪শে আগস্ট ভূমিকম্পের পরের সকালে ঘোষণা দিয়েছেন শহরটি একেবারে শেষ হয়ে গেছে। তিনি এই কার্টুন দেখে হতবিহ্বল। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনসা অনুযায়ী তিনি এ জন্য গালি দিয়ে বলেছেন, কিভাবে আপনারা মৃত মানুষদের নিয়ে এভাবে কার্টুন আঁকতে পারেন। আমি নিশ্চিত, অপ্রত্যাশিত ও বিব্রতকার এ স্যাটায়ার ফরাসি অনুভূতির প্রকাশ নয়। এ অবস্থায় ইতালির রোমে ফরাসি দূতাবাস তার ওয়েবসাইটে বিবৃতি দিতে বাধ্য হয়েছে। তাতে তারা লিখেছে, এই কার্টুন ফরাসিদের অবস্থানের প্রতিনিধিত্ব করে না। এটা যেসব সাংবাদিকের মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে তাদের অঙ্কনশিল্প। ২০১৫ সালে এই ম্যাগাজিন অফিসে হামলার পর ফ্রান্সের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছিলেন অনেক ইতালিয়ান। তারা তখন সামাজিক মিডিয়ায় লিখেছিলেন ‘আই অ্যাম শার্লি এবদো’। এবার তারাই এ ম্যাগাজিনটির এমন কা-জ্ঞান দেখে তাদের বর্তমান সংস্করণকে ‘টেরিবল’ বা ভয়াবহ, কুরুচিপূর্ণ, অসম্মানজনক বলে আখ্যায়িত করছেন। অনেকে টুইটারে, ফেসবুকে ও অন্যান্য সাইটে লিখেছেন, ‘আই অ্যাম নো লঙ্গার শার্লি এবডো’। তবে এখনও এ নিয়ে মন্তব্য করেন নি ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তিও রেনজি বা তার সরকারের কোন নেতাকর্মী। তবে এ বিষয়ে এক ধাপ এগিয়ে গেছেন ডানপন্থি ব্রাদার্স অব ইতালি পার্টির নেতা জর্জিয়া মেলোনি। তিনি বলেছেন, এটা স্যাটায়ার নয়। এটা হলো আবর্জনার স্তূপ। ওদিকে শার্লি এবডো তার ফেসবুক পেজে আরও একটি কার্টুন প্রকাশ করে এ বিতর্ককে আরও উস্কে দিয়েছে।

এ রকম আরো খবর

BD Foreign Secretary w UN Secretary-1

জাতিসংঘ মহাসচিবের সাথে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিবের সৌজন্য সাক্ষাৎ

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো: শহীদুল হক জাতিসংঘ সদর দফতরেবিস্তারিত

Britain Flag

ব্রিটিশ নির্বাচন: তিন বাঙালী পুনরায় জয়ী : ঝুলন্ত পার্লামেন্টে আবারও সরকার গঠন করছেন থেরেসা মে

বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: বৃটেনের সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি আবারোবিস্তারিত

Zakir-naik

আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ বিশ্বাস করে নি বাংলাদেশ সরকার

আমি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডকে উৎসাহিত করেছি এমনটা বিশ্বাস করে নি বাংলাদেশবিস্তারিত